মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২১st মার্চ ২০১৫

সাধারণ ঋণের নিয়মাবলী

 

 

কর্পোরেশনের ঋণ মঞ্জুরী ও বিতরণ পদ্ধতি এবং যে সকল দলিলপত্র দাখিল করতে হবে, তা নিম্নে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রয়োজনবোধে বিএইচ.বি.এফ.সি এর সদর দফতর ঋণ বিভাগে বা সংশি-ষ্ট জোনাল ও রিজিওনাল অফিস হতে ঋণ বিষয়ে পরামর্শ গ্রহণ করা যেতে পারে। কর্পোরেশন এর ঋণ পরিশোধ নিয়মাবলী অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের তুলনায় কিছুটা ভিন্নতর বিধায় ঋণ গ্রহণের পূর্বে সকল গ্রহীতাকে ঋণের মাসিক কিস্তি এবং পরিশোধ পদ্ধতি সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গঁ তথ্য জেনে নিয়ে ঋণ আবেদন করার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

 

২.০       ঋণের প্রকার:

            কর্পোরেশন বর্তমানে নিম্নোক্ত ৭ রকম (Type) এর গৃহ ঋণ দিয়ে থাকে:

 

২.১       সাধারণ ঋণ: একক ব্যক্তির বা স্বামী ও সএীর যৌথ নামে প্রদত্ত ঋণ;

 

২.২       গ্রুপ ঋণ: একাধিক ব্যক্তির মালিকানাধীন প্লটে ফ্ল্যাট/ইউনিট ভিত্তিক প্রত্যেককে আলাদা আলাদা ঋণ হিসাব   নম্বরে প্রদত্ত ঋণ;

 

২.৩       ফ্ল্যাট/এপার্টমেন্ট ঋণ: নির্মীয়মান ফ্ল্যাট/এপার্টমেন্ট কেনার জন্য ঋণ;

 

২.৪       বর্ধিত ঋণ: অনুমোদিত নকশার মুল ঋণে নির্মিত অংশ বাদে অনির্মিত অংশ নির্মাণের জন্য প্রদত্ত ঋণ;

 

২.৫       মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত স্কীমের ঋণ: মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত শ্রেণীর জন্য ৫৫০ হতে ১০০০ বর্গফুট          আয়তনের ইউনিট বিশিষ্ট বাড়ী নির্মাণ/ফ্ল্যাট ক্রয় ও জমির একাধিক মালিকের ক্ষেত্রে গ্রুপ ভিত্তিক ফ্ল্যাট          নির্মাণের জন্য প্রদত্ত ঋণ;  

 

২.৬       সেমি পাকা বাড়ীর জন্য ঋণ: ঢাকা ও চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকা ও বিভাগীয় সদর ব্যতীত অন্যান্য জেলা,         উপজেলা সদর এবং তৎসংলগ্ন সম্ভাবনাময় গ্রোথ সেন্টার/ বাণিজ্যিক স্থান সমূহে সেমি পাকাবাড়ীর নির্মাণের           জন্য প্রদত্ত ঋণ;

 

২.৭       স্বল্প মেয়াদী বিশেষ ঋণ: অনুমোদিত নক্শা মোতাবেক বাড়ী / দালানের নির্মাণ কাজ আরম্ভ করে নির্মাণ কাজ          শেষ/ ফিনিশিং পর্যায়ে এনেছেন শুধুমাত্র তাদের দালানের অসম্পূর্ণ নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য প্রদত্ত     ঋণ।

 

৩.০       ঋণ কার্যক্রমের এলাকা: বর্তমানে ঢাকা ও চট্রগ্রাম মহানগরীসহ দেশের সকল বিভাগীয়, জেলাসদর,           উপজেলা সদর ও সম্ভাবনাময় গ্রোথ সেন্টার/ বানিজ্যিক গুরুত্বপুর্ণ স্থানসমূহে কর্পোরেশনের ঋণ কার্যক্রম        চালু রয়েছে।

 

৪.০       সাধারণ ঋণ, গ্রুপ ঋণ ও মধ্যবিত্ত-নিম্নমধ্যবিত্ত স্কীমের ঋণ এর সিলিং এবং নির্মাণ হার:

            জমির মূল্য, অবস্থান, পারিপার্শ্বিকতা, নির্মিতব্য ভবনের গুণগত মান এবং সম্ভাব্য বাড়ীভাড়ার ভিত্তিতে কর্পোরেশন এলাকা ভেদে নির্মিতব্য ভবনের/ কাঠামোর ঋণের সিলিং এবং নির্মাণ হার নিম্নরূপে নির্ধারণ করা হয়েছে:

ক্রমিক নম্বর

এলাকার নাম

ঋণের সর্বোচ্চ সিলিং (লক্ষ টাকায়)

প্রতি বর্গফুটের নির্মাণ হার (টাকায়)

ঋণ গ্রহীতার  নিজস্ব বিনিয়োগ

(সর্বনিম্ন)

১।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকা।

৫০.০০

নীচতলা আবাসিক

২১৫০/-টাকা

গ্যারেজ ১৬৬০/-টাকা

উপরের তলা সমূহ ১৩৫০/-টাকা

২০%

২।

বিভাগীয় শহর খুলনা, রাজশাহী, সিলেট, বরিশাল ও রংপুর।

৪৫.০০

নীচতলা আবাসিক

২০৪৮/-টাকা

গ্যারেজ ১৫৮০/-টাকা

উপরের তলা সমূহ ১২৩০/-টাকা

২০%

৩।

কুমিল্লা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর সিটিকর্পোরেশন, ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার জেলা সদর এবং টঙ্গী ও সাভার পৌরসভা।

৪০.০০

নীচতলা আবাসিক

২০৪৮/-টাকা

গ্যারেজ ১৫৮০/-টাকা

উপরের তলা সমূহ ১২৩০/-টাকা

২০%

 

৪।

অন্যান্য সকল পুরাতন জেলা সদর, সাভার ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের আওতাধাীন এলাকা এবং যে সকল স্থানে কর্পোরেশনের  রিজিওনাল অফিস আছে।

 

৩৫.০০

নীচতলা আবাসিক

২০৪৮/-টাকা

গ্যারেজ ১৫৮০/-টাকা

উপরের তলা সমূহ ১২৩০/-টাকা

 

২০%

৫।

 

সকল নতুন জেলা সদর।

 

৩০.০০

নীচতলা আবাসিক

২০৪৮/-টাকা

গ্যারেজ ১৫৮০/-টাকা

উপরের তলা সমূহ ১২৩০/-টা